স’তীত্বের প্রমাণ দিতে বাজারে এলো নতুন ‘পিল’, নি’ন্দার ঝড়

বাজারে এলো নতুন ‘পিল’-সভ্যতার শুরু থেকে পদ্মা-মেঘনা-যমুনায় গড়িয়েছে অনেক জল। এগিয়েছে মানব সভ্যতা। মানুষ পৃথিবী ছাড়িয়ে পৌঁছে গেছে মঙ্গলগ্রহে। সভ্যতার শুরু থেকেই না’রী-পু’রুষের বৈ’ষম্য চলে আসছে। যুগে যুগে নারী বি’ভিন্নভাবে নি’র্যাতিত হ’য়েছে।

বিশেষ করে না’রীর স’তীত্ব প্র’মাণে পু’রুষ ছাড় দিতে নারাজ। এমনকি এই স’তীত্ব প্রমাণে সীতাকে দিতে হয়েছিলো আ’গুনে আ’ত্মহুতি। তবে, এই একুশ শতকে এসে সেই কু’মারীত্বের প্র’মাণই এবার প্যা’কেটবন্দি। নাম তার ‘আই ভা’র্জিন পিল।’ এক ক্লি’কেই মিলছে অ্যা’মাজনের

ওয়েবসাইটে। ইন্ডিয়ান পত্রিকায় এক প্রতিবেদনে জানা যায়, সম্প্রতি এক ধরনের পি’ল পাওয়া যাচ্ছে অ্যা’মাজন অনলাইন বাজারে। সেখানে বলা হচ্ছে কোনও পা’র্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই এই ওষু’ধে। প্রয়োজন পড়ে না কো’নও কা’টাছেঁ’ড়ার। অ’জ্ঞান ক’রারও প্র’য়োজন নেই। স্রে’ফ এক

পি’লেই শ’রীরে জ’মে যাবে প’রিমাণ মতো থ’কথ’কে ‘ন’কল’ র’ক্ত। প্রথম স’ঙ্গমের প’রই যা স’তীচ্ছেদ ভে’দ করে বে’রিয়ে আসবে ‘মি’থ্যা’ কু’মারীত্বের ‘প্র’য়োজনীয়’ প্র’মাণস্ব’রূপ! আ’বার তাতে চলছে অ’ফারও! অ্যা’মাজনের এই পণ্য ‘বিক্রির খবর জানতে পেরেই প্রতিবাদ জানান বিভিন্ন শ্রেণি পে’শার বিশিষ্টজন।

এ বিষয়ে ভারতীয় কথা সাহিত্যিক তিলোত্তমা মজুমদার জানান, না’রীদের ছোট করতে স’মাজের চাপিয়ে দেওয়া, লালন করা নানা খে’লার প্রসঙ্গ তো বা’দই দিলাম, এ তো ‘রীতিমতো মি’থ্যাচার! প্র’তারণা! অ’বিশ্বাস ও মি’থ্যাচার দিয়ে সম্পর্ক শু’রুর হ’দিশই তো দিচ্ছে এই পিল!

কু’মারিত্বের প্রয়োজন আছে কি না তা নিয়ে বলার পা’শাপাশি এই প্র’তারণার দি’কটিই বা উ’ড়িয়ে দিই কী করে! মেয়েটি বিশ্বাস করছে, কুমারী না হলে ভা’লোবাসা কমবে! ছেলেটি ভাবছে, কু’মারী হয়ে ধরা দেওয়াই ভালোবাসার প্রা’থমিক শর্ত! তিলোত্তমার কথায়, এই দুই ধারণার ওপর নি’র্ভর করেই ওষুধ প্র’স্তুতকারী সং’স্থাটি যদি তাদের পিল বাজারে আনে,

আর তার ব্য’বহারও হু হু করে বাড়ে, তা হলে এই সমাজকে যে তার আ’ন্দোলনকে ফের কেঁ’চে গ’ণ্ডুষ করতে হবে তা বেশ বোঝা যায়। দু’জন মানুষের একজন অন্যের আস্থা অ’র্জন করছে এক অন্যায়, আদিম ও অপ্রয়োজনীয় প্রথা দিয়ে, আর অন্যজন সেই বর্বর প্রথা দিয়েই নি’ক্তিতে মেপে মে’য়েটির ‘খুঁ’তহীন’ শরী’রকে গ্র’হণ করছে- এই পি’ল তো সেই আ’চরণকেই মা’ন্যতা দিচ্ছে!

সুত্র: ইন্ডিয়াটাইমস

Author: Admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *