এবা’র মু’খ খুল’লেন গৃহ’কর্মী রেখা,যার প্ররো’চনায় বৃ’দ্ধাকে নির্যা’তন করতেন

স্বামীর প্ররোচনায় মালিবাগের বৃদ্ধাকে নির্যাতন করেছে গৃহকর্মী রেখা আকতার। স্বামী এরশাদ দ্বিতীয় বিয়ে করে রেখাকে টাকার জন্য চাপ দিতো বলে জানায় পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গৃহকর্মী রেখা পুলিশকে একথা জানায়।বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) বিকেলে, ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার উপ পরিচালক ওয়ালিদ হোসেন এ কথা জানান।

এর আগে, বৃহস্পতিবার ভোররাতে শাহজাহানপুর থানার একটি বিশেষ দল ঠাকুরগাঁও জেলার রানীশংকৈল এলাকা থেকে গৃহকর্মী রেখা আকতার ও তার স্বামী এরশাদকে চোরাই মালসহ গ্রেপ্তার করে। ঢাকা থেকে পালিয়ে রেখা আকতার আত্মগোপনে ছিলো ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে মামার বাসায়। তাকে গ্রেপ্তারের পরেই ঠাকুরগাঁও থেকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়।

রেখার গ্রামের বাড়ি ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড় পলাশবাড়ি গ্রামে। এলাকাবাসী জানায়, ৪-৫ বছর আগে অনেক ধারদেনা থাকায় এলাকা ছাড়ে তারা। এরপর থেকে তারা ঢাকাতেই বসবাস করতো।

পুলিশ জানায়, চুরি করা টাকার মধ্যে এক লাখেরও বেশি টাকা সে ইতিমধ্যে খরচ করে ফেলেছে সে। তবে তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ৬০ হাজার টাকা, স্বর্ণালঙ্কার ও মোবাইল ফোন। পুলিশের ধারণা, গৃহকর্মী রেখা দীর্ঘদিন ধরে চুরির এই পরিকল্পনা করেছিলো।

উল্লেখ্য, রাজধানীর মালিবাগে এক বছর আগে বিলকিস বেগমের মেজ মেয়ে মেহবুবা জাহান বুলবুলির বাসায় কাজ শুরু করেন রেখা। গত ৭ জানুয়ারি কাজ ছেড়ে অন্যত্র চলে যান। ১৬ জানুয়ারি সার্বক্ষণিক থাকার কথা বলে ফিরে আসেন ওই বাসায়।

এর দু’দিন পর বাসায় কেউ না থাকার সুযোগে গৃহকর্ত্রী ৭৫ বছরের বৃদ্ধা বিলকিস বেগমকে একা পেয়ে বিবস্ত্র করে মারপিট করে। পরে তার বাসা হতে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, টেলিভিশনসহ আনুমানিক ২১ লক্ষ টাকার মালামাল চুরি করে পালিয়ে যায়।

Author: Admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *